Untitled Document
** সুন্দরবনে হারিয়ে যাওয়া কিশোরকে উদ্ধার ** হাত ধোয়ার কর্মসূচি না টাকার শ্রাদ্ধ ** যমুনায় নৌকাডুবি: আরও ৫ জনের লাশ উদ্ধার ** ঝুঁকি নিয়ে রাজধানীতে ফিরতে শুরু করেছে মানুষ ** দিনাজপুরে সরকার সম্পর্কে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মিথ্যা মন্তব্য ও গুজব ছড়ানো: যুবক গ্রেপ্তার ** মেয়ের সামনে মাকে গণধর্ষণ : গ্রেপ্তার ১ ** ঝুঁকিপূর্ণ নারায়নগঞ্জে খুলেছে ১৯১টি কারখানা ** গাজীপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহত ** বেঁচে আছেন’ কিম জং উন ** ভুলের জন্য আমি ক্ষমা প্রার্থী -ইরিন রিয়া,সভাপতি,যুব মহিলালীগ,খিলক্ষেত থানা ** কিশোরগঞ্জে মাছ চুরিকে কেন্দ্র করে নিহত এক ** ১০ দিনের জন্য অবরুদ্ধ দেশ ** ফরিদপুরের চরভদ্রাসনে ছুরির আঘাতে এক যুবক নিহত ** খুলনায় জ্বর ও শ্বাসকষ্টে একজনের মৃত্যু ** কানাইঘাটে দোকান বন্ধ করতে বলায় পুলিশকে ধাওয়া
Mar 242013
 

ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতের অতিরিক্ত পিপি শাহ আলম তালুকদার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, পল্টন থানার উপ পরিদর্শক মাহমুদুল হাসান রোববার বিকালে এই অভিযোগপত্র জমা দেন।

তদন্তে ‘ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ততা’ না পাওয়ায়, মামলার ১৫৪ আসামির মধ্যে ছয় জনের নাম বাদ দেয়ার আবেদন করেছেন তদন্ত কর্মকর্তা। অভিযোগপত্রে রাষ্ট্রপক্ষে সাক্ষী করা হয়েছে ৪২ জনকে।

দ্রুত বিচার হাকিম কেশব রায় চৌধুরী এ অভিযোগপত্র গ্রহণ করবেন বলে শাহ আলম তালুকদার জানান।

গত ১১ মার্চ বিকালে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে ১৮ দলের সমাবেশের শেষ দিকে হঠাৎ কয়েকটি হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটে এবং সমাবেশ পণ্ড হয়ে যায়।

এর ঘণ্টাখানেক পর বিএনপি কার্যালয় ও আশেপাশের এলাকা থেকে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ১৮ দলীয় জোটের ১৫৫ নেতাকর্মীকে আটক করে পুলিশ। কার্যালয়ে তল্লাশি চালিয়ে পুলিশ দশটি হাতবোমা উদ্ধারের কথা জানায়।

পরদিন বিএনপির তিন নেতা মির্জা ফখরুল, সাদেক হোসেন খোকা ও আলতাফ হোসেন চৌধুরীকে ছেড়ে দিলেও ১৮ দলীয় জোটের ১৫৪ জনের বিরুদ্ধে দুটি মামলা করে পল্টন থানা পুলিশ। দুই মামলাতেই আরো ৪০-৫০ জন অজ্ঞাতপরিচয় নেতাকর্মীকে আসামি করা হয়।

বিরোধী দলীয় প্রধান হুইপ ফারুক, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রিজভী ছাড়াও যুগ্ম মহাসচিব আমান উল্লাহ আমান ও মো. শাজাহান, ড্যাব মহাসচিব ও বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ড. এম জাহিদ হোসেন এবং বিএনপির সহ-তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিবকে মামলায় হুকুমের আসামি করা হয়।
আইন-শৃংঙ্খলা বিঘ্নকারী অপরাধ (দ্রুত বিচার) আইনের ৪ ও ৫ ধারায় জমা দেয়া অভিযোগপত্রে বলা হয়- ছয় হুকুমের আসামি ওইদিন বিকালে নয়া পল্টনে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে ১৮ দলীয় জোটের সমাবেশে মাইকের মাধ্যমে ত্রাস ও অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টির জন্য কর্মীদের উত্তেজিত করে তোলেন। এর ফলে দলীয় কর্মীরা ওই এলাকায় ১৮ থেকে ২০টি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটায়।

তারা জনসাধারণের চলাচলের রাস্তায় টায়ার, চট, কাঠ ও কাগজ দিয়ে সাতটি জায়গায় আগুন দিয়ে অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি করে। এছাড়া সরকারি বেসরকারি কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে ক্ষতি করে এবং পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে আহত করে বলে অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়।

যে ছয়জনকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়ার আবেদন করা হয়েছে তারা হলেন- মো. সোবহান, মো. জুনায়েদ ওসমান, মো. শাকিল, সোহেল রানা, মাহাবুবুর রহমান ও হাজী মো. নাঈম আহম্মেদ।

আদালত এ দুই মামলায় রিজভী, আমান ও ফারুককে কারাগারে এবং বাকি ১৫১ জনকে ইতোমধ্যে পুলিশ রিমান্ডে পাঠিয়েছে।

দ্রুত বিচার আইনের মামলায় মহানগর হাকিম কেশব রায় চৌধুরী গত ২০ মার্চ ১৫১ আসামিকে তিন দিন এবং বিস্ফোরণের মামলায় অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম মো. আলী হোসেন পাঁচ দিন করে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের আবেদন মঞ্জুর করেন।

 Posted by at 2:22 pm

 Leave a Reply

(required)

(required)

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>